ব্রেকিংঃ

ভোলার শিবপুরে অসহায় বৃদ্ধার কান্নার রোল এ যেন কেউই শুনছে না।

ইউসুফ হোসেন নিরব।।

ভোলা সদর উপজেলা শিবপুর ইউনিয়ন ৭ নং ওয়ার্ড রতনপুর গ্রামের বাঘাবাড়ির অসহায় বৃদ্ধার গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। অনুসন্ধানে জানা যায় ভোলা সদর উপজেলা শিবপুর ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড রতনপুর গ্রামের রফিকুল ইসলাম বাঘা নামের এক ক্ষমতাবান ব্যক্তি অসহায় বৃদ্ধ সালেহা খাতুনের, চারটি গাছ কেটে নিয়ে যায়। ভুক্তভোগী সালেহা খাতুন জানায়, আমার স্বামী নেই আমি পরের বাড়ীতে কাজ করে কোনরকমে সংসার চালাই, রফিকুল ইসলাম বাঘা, পিতা মৃত আব্দুল গনি বাঘা, মোঃ আল-আমিন পিতা রফিকুল ইসলাম বাঘা, মোহাম্মদ ফারুক, জান্নাত বেগম স্বামী মোঃ লিটন মিয়া, জিন্নাত আরা বেগম সহ গত ১৩-১২-২০২০ ইং তারিখে সকাল আনুমানিক ৭ টায় রফিকুল ইসলাম বাঘা সহ তার সন্ত্রাসী বাহিনীরা এসে আমার স্বামীর রোপন করা গাছ কেটে নিয়ে যায় আমি বাধা দিতে গেলে আমার চুলের মুঠি ধরে আমার উঠোনে আমাকে লাঠিসোটা নিয়ে মারধর করে এবং বলে তোর ভিটের উপরে তোকে গেঁড়ে দেব , আমার ডাক চিৎকারে এলাকার লোকজন ছুটে আসে এবং গ্রাম্য ডাক্তার দিয়ে আমার এলাকার লোকজন খরচ দিয়ে আমার চিকিৎসা করায় এবং বলে আপনি এলাকায় কোনো বিচার পাবেন না, থানায় দরখাস্ত করুন। সালেহা খাতুন, কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন আমার স্বামী নাই আমি মানুষের বাড়িতে কাম কইরে সংসার চালাই, আমার জল্পন নাই এর জন্য আমি বিচার পাই না।