ব্রেকিংঃ

বাপ্তার উপনির্বাচনে জিয়াউদ্দিন বাবলুর সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা প্রতিনিয়ত হেনস্তা হচ্ছেন অপর প্রার্থীরা।।

স্টাফ রিপোটার।
ভোলা সদর উপজেলার বাপ্তা ইউনিয়নের ৮নং ওয়াডের সাবেক ইউপি সদস্য মরহুম নজরুল ইসলাম অসুস্থ্য হয়ে মারা যাওয়ায় ঐ আসনটি শূন্য হয়।
আসনটি শূন্য হওয়ার পর থেকে শূন্য পদটি পূরন করার জন্য উপনির্বাচনের ঘোষনা দিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার।

বাপ্তা ইউনিয়নের ৮নং ওয়াডের উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রার্থীদের প্রচারনা প্রচারনা তুঙ্গে।

৮নং ওয়াডের উপনির্বাচন কে কেন্দ্র করে তিনজন মেম্বার প্রার্থী প্রচারনা শুরু করেছেন।

এরই মধ্যে নির্বানকে ঘিরে চায়ের দোকানে চা বেচা কিনার ধুম পরেছে জমে উঠেছে নির্বাচনী আমেজ।
রাস্তার মোড়ে মোড়ে পোস্টার ফেস্টুন ব্যানারে ছেয়ে গেছে প্রার্থীদের ।
নির্বাচনকে ঘিরে তিনজন প্রার্থীর মধ্যে জিয়াউদ্দিন বাবলুর তান্ডবে দিশে হারা হয়ে পরেছে অপর দুই প্রার্থী শাহাজান ও কামাল হোসেন।

এদের মধ্যে জনপ্রিয়তার শীর্ষে ফুটবল মার্কার সমর্থিত প্রার্থী কামাল হোসেন।

ফুটবল প্রতিকের প্রার্থী কামাল হোসেন এর জনপ্রিয়তা দেখে তার প্রতিদ্বন্দি প্রার্থী জিয়া উদ্দিন বাবলু স্থানীয় ক্যাডার বাহিনী সহ বহিরাগতদের নিয়ে ভোট কেন্দ্রের আশ পাশে ঘুরা ঘুরি করতেছে এবং তারা যরকোন সময় ই হামলা করার পনিকল্পনার ছক আকতেছে।

ওয়াড নির্বাচনটিতে যেই মেম্বার হোক কেন কোন আপত্তি নাই তবে ভোটারেরা যাতে নীর দিধায় ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারে তার ব্যবস্থা করে দেওয়ার জন্য উক্ত ওয়াডটিতে যেন সুষ্ঠ নির্বাচন হয় সে ব্যাপারে জেলা পুলিশ সুপার সহ জেলা গোয়েন্দ সংস্থার নজর দারি দাবি করছি।

স্থানীয় ভোটারেরা জানান, ফুটবল মোরক মার্কার সমর্থিত প্রার্থী কামাল হোসেনের প্রচারনা ও জনপ্রিয়তা অনেক বেশি তাই এই মাসের তারিখে যদি নির্বাচন সুষ্ঠ হয় তাহলে ফুটবল মার্কার প্রার্থী বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে জয় যুক্ত হয়ে জনগনের জন্য সেবা করতে পারবেন বলে আশা প্রকাশ করছি।
এদিকে প্রার্থী কামাল হোসেন জানান ভোট সুষ্ঠ হলে জয় সুনিশ্চিত ফুটবল মার্কার প্রার্থীর তার কারন এই ওয়াটিতে আমার বাবা মেম্বার ছিলেন তার জনপ্রিতা অনেক বেশি ছিলো।

তিনি জনগনের জন্য সেবা করে গেছেন তাদের বিপদ আপদে তাদের পাশে আমার বাবা সব সময়ই ছিলেন তাই আমার জয়ের নিশ্চয়তা আমি ইনশাল্লাহ ১০০% নিশ্চিত।
তবে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মোরক মার্কার প্রার্থী দল বল ও ক্যাডারদের নিয়ে রাতে কেন্দ্র পাহাড়া দিচ্ছেন এবং হামলা করে ভোট বন্ধ করার পায়হারা করছেন বলে প্রতিবেদক জানান ফুটবল প্রার্থী।
তাই কেন্দ্রটি ভোটের পূর্বে আইনশৃ্ঙ্গলা বাহিনীর নজর দাড়ির দাবি করছেন।
নচেৎ যেকোন সময় ই দূর্ঘটনা ঘটাতে পারে এলাকাতে।

এদিকে স্থানীয়দের সাথে আলাপ করলে তারা জানান, ১৮ তারিখ ১২ টার দিকে কে বা কারা যেন মোরক মার্কার প্রার্থীর অফিস ভাঙ্গচুর করেছে এনিয়ে ধুম্রজাল সৃস্টি হয়েছে এলাকাতে।

এনিয়ে এক পক্ষ আরেক পক্ষ কে দোষারুপ করে যাচ্ছে বলে জানান স্থানীয় ভোটারেরা।

তারা আরো জানান বাপ্তার ৮নং ওয়াডটি খুব ঝুর্কিপূর্ন তাই প্রশাসনের নজর দারির দাবি জানিঢেছেন তারা।