ব্রেকিংঃ

ভোলায় সন্ত্রাসীর গুলিতে নিহত টিটুর জানাযায় হাজারো মুসল্লীর ঢল।।

এম রহমান রুবেল।।ভোলার নাছির মাঝি ঘাটে সন্ত্রাসীর গুলিতে  যুবলীগ কর্মী নিহত টিটুর জানাযায় হাজারো মুসল্লীর ঢল।

শনবার যোহর নামাজ বাদে ধনিয়া গোডাউন স্কুল মাঠে ভোলা জেলা আ’লীগ ও তার সহযোগী সংগঠের নেতা কর্মী সহ দুর দুরান্ত থেকে আসা ধর্মপ্রান মুসল্লীদের অংশগ্রহণের মাধ্যমে যুবলীগ কর্মী টিটুর জানাযা সম্পন্ন হয়েছে।
এসময় জানাযায় উপস্থিত ছিলেন, ভোলা সদর উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোশারেফ হোসেন মশু, জেলা আ’লীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ও কাচিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জহুরুল ইসলাম নকিব, জেলা আ’লীগের সাংগঠনিক ও সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইউনুছ, দৌলতখান উপজেলার আ’লীগের সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, দৌলতখান উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান,মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাছির আহমেদ নান্নু,ধনিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এমদাদুল ইসলাম কবির প্রমুখ।

এসময়, উপজেলা চেয়ারম্যান বলেন, টিটু ছিলো দলের নিবেদিত কর্মী। টিটু চেয়ারম্যান কে বাচাতে গিয়ে সন্ত্রাসীর গুলিতে গুলিবিদ্ধ হয়ে অকালে চলে যাবে তা ভাবতে ও পারেনী। আমি তার বিদায়ী আত্নার মাঘফেরাত কামনা করছি।

জহুরুল ইসলাম নকিব বলেন,টিটু এভাবে আমাদের ছেড়ে এতো অল্পরসময়ে চলে যাবে আমরা ভাবতে পারি নাই।
টিটু ছিলো আ’লীগের নিবেদিত প্রান সে সব সময় দলের প্রতিটি কর্মকান্ডে অংশগ্রহন করতো। তিনি আরো বলেন ভোলায় কোন সন্ত্রাসীর জায়গা হবে টিটু হত্যার সন্ত্রাসীদের যেখানে পাবেন তাদের ধরে রেখে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কে খবর দিয়ে তাদের হাতে তুলে দিবেন।

উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ইউনুছ বলেন, টিটু দলের যেকোন কর্ম কান্ডে সবার আগে সময় সব অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতো। টিটু এভাবে সন্ত্রাসীর বুলেটের আঘাতে গুলিবিদ্ধ হয়ে পরোপারে চলে যাবে ভাবতে কষ্ট হচ্ছে আমি তার বিদায়ী আত্নার মাঘফেরাত ও বেহস্ত কামনা করছি আর দুষিদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্ত শাস্তি কামনা করছি।

উল্লেখ্য ২৬/১১/২১ ইং তারিখ শুক্রবার সকালে দৌলতখান উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নে বিজয়ী চেয়ারম্যান প্রার্থী নাছির আহমেদ নান্নুর সাথে বিজয়ী ইউপি সদস্য সহ তার কর্মীদের নিয়ে মদনপুর চরে গিয়ে সেখান থেকে বিকালে ভোলার ধনিয়া ইউনিয়নের নাছির মাঝি ঘাটে আসার অল্প কিছু সময়ে আসলে ই দুর থেকে হঠাৎ ট্রলার কে লক্ষ্য করে ১১ জন সন্ত্রাসী স্প্রীড বোটে করে কাছে ট্রলারের কাছে আসলে বিজয়ী চেয়ারম্যান নান্নু কে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি করতে থাকলে সেই গুলিতে যুবলীগ কর্মী টিটু নিহত হয়।